৭ বছর পর দামেস্কে আমিরাতের দূতাবাস ফের চালু

সংযুক্ত আরব আমিরাত বৃহস্পতিবার দামেস্কে তাদের দূতাবাস পুনরায় চালু করেছে। সিরিয়া সরকারকে আরব কাতারে ফিরিয়ে আনার প্রচেষ্টার এটি সর্বশেষ ইঙ্গিত। খবর এএফপি’র।

সরকার পরিবর্তনের দাবিতে দেশব্যাপী বিক্ষোভ চলাকালে সরকারি বাহিনী ব্যাপক দমনপীড়ন চালানোয় ভয়াবহ যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়লে ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে সিরিয়ার সাথে সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) সম্পর্ক ভেঙে যায়।

প্রায় দীর্ঘ সাত বছর পর কূটনীতি ও সাংবাদিকদের অংশগ্রহণে এক অনুষ্ঠানে সেখানে আবারো আমিরাতের পতাকা উত্তোলন করা হয়।

আমিরাতের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ভারপ্রাপ্ত চার্জ দ্যা অ্যাফেয়ার্স ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছেন। বিবৃতিতে জোর দিয়ে বলা হয়, ইউএই তাদের মধ্যে আবারো স্বাভাবিক সম্পর্ক বজায় রাখতে আগ্রহী।

এতে আরো বলা হয়, আবারো এই দূতাবাস চালু করার প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে সিরিয়ার সার্বভৌমত্ব ও স্বাধীনতার প্রতি সমর্থন এবং আঞ্চলিক হস্তক্ষেপের ঝুঁকি মোকাবেলা করা।

এ মাসের গোড়ার দিকে সুদানের প্রেসিডেন্ট ওমর আল-বশিরের দামেস্ক সফরকে পর্যবেক্ষকরা সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের কূটনৈতিক অঙ্গন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া এড়াতে আঞ্চলিক প্রচেষ্টার একটি ইঙ্গিত হিসেবে ব্যাখ্যা করেন।

এদিকে ইউএই’র ঘোষণার কয়েক ঘণ্টা পর বাহরাইনও দামেস্কে তাদের দূতাবাস ফের খোলার ইঙ্গিত দিয়েছে। ২০১২ সালের মার্চ মাসে তারা তাদের দামেস্ক’র দূতাবাস বন্ধ করে দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

স্বাগতম

আপনাদের অনুপ্রেরণায় আমাদের পথচলা

অনলাইন নিউজ পোর্টাল সংবাদ সারদিন এর সাথে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

shares