মাদকের সাথে পুলিশ জড়িত থাকলে ছাড় নয় : ডিএমপি কমিশনার

মাদকের সাথে পুলিশের কোনো সদস্য জড়িত থাকলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

আজ মঙ্গলবার উত্তরা কমিউনিটি সেন্টারে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক এক মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন তিনি।

কমিশনার বলেন, মাদক বন্ধ করতে যা যা করা দরকার তাই করা হবে। মাদক ব্যবসায়ীদের পিছনের মদদদাতাদের খুঁজে বের করা হবে।

তিনি বলেন, ঢাকা শহরে কোনো মাদকের আখড়া থাকলে পুলিশকে জানান, ব্যবস্থা নেয়া হবে। জঙ্গি ও সন্ত্রাস দমনে বাংলাদেশের সাফল্য সারা বিশ্বের কাছে বিস্ময় এর কৃতিত্ব দেশবাসীর।

এসময় ইভটিজিং, মাদক ও সন্ত্রাসী সম্পর্কে তিনি বলেন, পুলিশ ঢাকা শহরে হাজার হাজার উঠান বৈঠক করে ইভটিজিং, মাদক, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জনমত সৃষ্টি করেছে। একের পর এক জঙ্গি আস্তানা খুঁজে বের করে ধংস করে দেয়া হয়েছে।

চাঁদাবাজী ও টেন্ডারবাজদের সম্পর্কে কমিশনার বলেন, বাসাবাড়ি করার সময় কেউ চাঁদা চাইলেই তাদের নিশ্চিহ্ন করে দেয়া হবে। পুলিশের সক্ষমতা বৃদ্ধি করা হয়েছে।

বাসাবাড়ির ফর্ম সম্পর্কে তিনি বলেন, নাগরিকদের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে আর এ তথ্য ভান্ডারের নাম দেয়া হয়েছে সিটিজেন ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। নাগরিকদের এ তথ্য সংগ্রহের কারণে নিরাপত্তার ক্ষেত্রে যুগান্তকারী পরিবর্তন হয়েছে।

পবিত্র মাহে রমজান ও ঈদুল ফিতর যাতে করে মানুষ নিরাপদে পালন ও উদযাপন করতে পারে সে ব্যাপারে প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন উত্তরা জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার নাবিদ কামাল শৈবাল। মাদক ও উগ্রবাদমুক্ত সমাজ গড়তে সকলকে আহ্বান জানান তিনি। তিনি বলেন, অভিভাবকদের সন্তানদের প্রতি আরো সচেতন হতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

স্বাগতম

আপনাদের অনুপ্রেরণায় আমাদের পথচলা

অনলাইন নিউজ পোর্টাল সংবাদ সারদিন এর সাথে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

shares