নড়িয়ায় গণধোলাই শেষে তিন ডাকাতকে পুলিশে হস্তান্তর

নড়িয়ায় ডাকাতি করা গরু বিক্রির সময় তিন ডাকাতকে ধরে গণধোলাই শেষে পুলিশে হস্তান্তর করেছে স্থানীয় জনতা। শনিবার ভোর সাড়ে ৫ টার সময় শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলার চরআত্রা এলাকায় স্থানীয় জনতা ডাকাতদলের এ ৩ সদস্যকে আটক করে। নড়িয়া থানা পুলিশ আহত অবস্থায় তিন ডাকাতকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে।
আহত ডাকাতরা হলেন নড়িয়া উপজেলার নওপাড়া গ্রামের সাহেব আলী বেপারীর ছেলে নুর আলম (২৬), উপসী বিশু গাঁও গ্রামের মঙ্গল বেপারীর ছেলে সেলিম বেপারী (৫০) ও কানার গাঁও গ্রামের মৃত রহমত উল্লাহ বেপারীর ছেলে এবাদুল (৩২)।
নড়িয়া থানা পুলিশ সূত্র জানায়, শুক্রবার দিবাগত রাতে ডাকাত দল ভেদরগঞ্জ উপজেলার পদ্মা নদীতে গরুর ট্রলারে ডাকাতি করে। পরে ডাকাতি করা গরু নড়িয়া উপজেলার চরআত্রা এলাকার এক ব্যবসায়ীর কাছে বিক্রির জন্য প্রস্তাব করে ডাকাত দল। গভীর রাতে গরু হস্তান্তরের সময় স্থানীয় জনতা টের পেয়ে তিন ডাকাতকে আটক করে গণধোলাই দেয়। পরে তারা নড়িয়া থানা পুলিশ খবর দেয়। পুলিশ আহত ডাকাতদের গ্রেপ্তার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। ডাকাতি করা গরু ও ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ট্রলার নড়িয়া থানা পুলিশের জিম্মায় নেয়া হয়েছে।
নড়িয়া থানার ওসি তদন্ত আবু বকর মাতুব্বর বলেন, ডাকাতদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ডাকাতি যাওয়া গরু ও ট্রলার হেফাজতে নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

স্বাগতম

আপনাদের অনুপ্রেরণায় আমাদের পথচলা

অনলাইন নিউজ পোর্টাল সংবাদ সারদিন এর সাথে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

shares