আরিচায় স্পিড বোট দুর্ঘটনায় নিহত ১, নিখোঁজ ৩

শিবালয় উপজেলার যমুনা নদীতে শুক্রবার বিকেলে যাত্রীবাহী দু’টি স্পিড বোটের সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনায় দুই শিশুসহ তিনযাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় দু’শিশু নিখোঁজের খবরে তাদের দাদী হার্টএটাকে মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, আরিচা-কাজিরহাট নৌরুটে স্পিডবোটযোগে পাবনা এক্সপ্রেসের যাত্রী বহনকালে দু’টি বোডের মুখোমুখী সংঘর্ষ ঘটে। সংঘর্ষে উভয় বোর্ডের যাত্রীরা নদীতে ছিটকে পড়ে। নারী-শিশুসহ ৪০ যাত্রীর অধিকাংশ উদ্ধারকর্মীদের সহায়তায় প্রাণে রক্ষা পেলেও চারজন নিখোঁজ হয়।

দুর্ঘটনার খবরে ঘটনাস্থলে ছুটে আসা দমকল বাহিনীর ৪টি ইউনিট ঘণ্টাব্যাপী উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে দুর্ঘটনার শিকার দুটি বোড উদ্ধার করলেও নিখোঁজ যাত্রী উদ্ধারে ব্যর্থ হয়। ঘটনাস্থলে আলোস্বল্পতা ও নদীতে প্রচুর স্রোত থাকায় উদ্ধার কাজে বিঘ্ন ঘটছে বলে দমকলবাহিনীর কর্মকর্তা মিজানুর রহমান জানিয়েছেন।

তিনি আরোও জানান, নানাবিধ কারণে উদ্ধার কাজ সাময়িক বন্ধ রাখা হয়েছে।

এদিকে, জেলেদের মাছ ধরার জালে হতভাগ্য যাত্রী ইকবাল হোসেন (৩৮) এর লাশ উঠে আসে। সে পাবনার সাথিয়া উপজেলার ঘুঘুধারা গ্রামের নজরুল ইসলামের পুত্র। নিখোঁজ অপর তিনজন হচ্ছে- ঢাকার ধামরাই উপজেলার রফিকুল ইসলামের কন্যা দীপ্তি আক্তার (১৩), নরসিংদীর মনোহরদী থানার খারাবর গ্রামের দেলায়ার হোসেনের শিশু কণ্যা তনয় (৩) ও নয় মাসের পুত্র তানিম।

এ দুর্ঘটনার খবরে নিখোঁজ তনয় ও তানিমের দাদী সুফিয়া বেগম (৭০) গ্রামের বাড়ি মনোহরদীতে হার্টএটাকে মারা যান বলে তার নিকট আত্মীয়রা জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

স্বাগতম

আপনাদের অনুপ্রেরণায় আমাদের পথচলা

অনলাইন নিউজ পোর্টাল সংবাদ সারদিন এর সাথে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

shares